প্রচ্ছদ

অনশনরত শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট ঘোষণা দাবি

03 January 2018, 03:04

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 62 times.

শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে আশ্বস্ত হতে পারলেন না অনশনরত শিক্ষকরা,
এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট ঘোষণা দাবি

আজ ০২ জানুয়ারী ২০১৮ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সকল স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির দাবিতে ৩য় দিনেও ‘আমরণ অনশন’ কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীবৃন্দ। এ সময় সকাল ১১টায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ শিক্ষা সচিবসহ কর্মকর্তাদের নিয়ে অনশনস্থলে এসে শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির আশ্বাস দিয়ে আমরণ অনশন প্রত্যাহার করতে অনুরোধ জানান। কিন্তু তার বক্তব্য সুষ্পষ্ট না হওয়ার অনশনরত শিক্ষকরা সমস্বরে ‘না’ ধ্বনি উচ্চরণ করেন। এ সময় সাধারণ সম্পাদক শিক্ষামন্ত্রীকে অনশনস্থলে আসার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট ঘোষণা দেওয়ার অনুরোধ জানান। এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেন। বেলা ১২টার সময় অনশনরত সংগঠনের সভাপতি গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি ৭০২নং ওয়ার্ডের ৫০নং বেডে বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন।

শিক্ষক নেতৃবৃন্দ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট সময় ঘোষণার দাবি করে এ ব্যাপারে প্রধামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। তারা এমপিওভুক্তির ব্যাপারে নিশ্চিত না হয়ে বাড়ি ফিরে যাবেন না বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

আমরণ অনশনের ৩য় দিনে ৩৯ জন শিক্ষক-কর্মচারী অসুস্থ হয়ে বিভিন্ন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ৭০২নং ওয়ার্ডের ৫১নং বেডে খুলনার সুপার বাহরুল ইসলাম, ৪০নং বেডে নওগাঁর চকরঘুনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের মোঃ বাবুল হোসেন মন্ডল, বগুড়ার ধুপকাঠীর শিক্ষক সেকেন্দার আলী, মাগুরা আদর্শ ডিগ্রী কলেজের ইকরামুল ইসলাম, কুষ্টিয়ার সিরাজউদ্দৌলা কলেজের আশরাফুল আলম লাভলু প্রমুখ।

৩য় দিনে আমরণ অনশনে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য প্রদান করেন, জাতীয় শিক্ষা নীতি প্রণয়ন কমিটির সদস্য কাজী ফারুক আহমেদ, বি.টি.এ’র সভাপতি সৈয়দ মোফাজ্জেল, ইব্রাহীম মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক আবু সাঈদ (কমিউনিটি মেডিসিন), বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় নেতা অনুপম বড়–য়া, বাংলাদেশ ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য কমরেড আজিজুর রহমান ও অধ্যাপক আঃ সাত্তার, মেজর (অবঃ) মোঃ মামুনুর রশীদ, জাতীয় শিক্ষক কর্মচারী ফ্রন্টের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মোঃ মহসিন রেজা, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক হাফেজ মোঃ হেমায়েত উদ্দীন, ইব্রাহীম মেডিকেল কলেজের ডাঃ তুনাজ্জিনা শাহরিন, বি.এস.এম.ইউ’র ডাঃ মোঃ আঃ খালেক, বাংলাদেশ ভোকেশনাল শিক্ষক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আলমগীর হোসেন প্রমুখ।
আগামী দিনের কর্মসূচীঃ “দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরণ অনশন চলবেই।”

Share

Comments

comments

Shares