প্রচ্ছদ

ঢাকা-নেপিদো চুক্তিতে অসন্তুষ্ট জাতিসংঘ

18 January 2018, 08:42

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 55 times.

মঙ্গলবার, দুই বছর রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সম্পন্ন করতে ঢাকা-নেপিদো চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী, সপ্তাহে অন্তত দেড় হাজার রোহিঙ্গা ফেরত নেবে মিয়ানমার। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ঢাকা-নেপিদো চুক্তিতে সন্তুষ্ট নয় জাতিসংঘ । নিরাপত্তা ও নাগরিকত্বের বিষয়টি নিশ্চিত না করে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর বিপক্ষে মত দিয়েছে সংস্থাটি । পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রাখাইন রাজ্যে চলাচলের অনুমতিও পাচ্ছে না জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা ইউএনএইচসিআর । রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তিতে ইউএনএইচসিআরকে অন্তর্ভূক্ত না করায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি । তাদের অভিযোগ, সার্বিক পরিস্থিতি পর্যেবক্ষণে রাখাইনে প্রদেশে চলাচলের অনুমতিও দেয়া হচ্ছে না ইউএনএইচসিআরকে।

তবে, এ প্রক্রিয়ায় জাতিসংঘকে যুক্ত না করায় উদ্বেগ জানিয়েছেন সংস্থাটির মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস । তার অভিযোগ, রাখাইন রাজ্যে নিরাপত্তা এবং রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্বের বিষয়টি ফয়সালা না করেই তাদের ফেরত পাঠানো হচ্ছে । কেউ ফিরতে না চাইলে জোর করে ফেরত পাঠানোর ব্যাপারেও আপত্তি আছে জাতিসংঘ মহাসচিবের ।

এদিকে, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের এখনও বাংলাদেশ থেকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর সময় হয়নি বলে মনে করে যুক্তরাজ্য। মঙ্গলবার দেশটির পার্লামেন্ট এবং মানবাধিকার সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে এমন অবস্থান জানানো হয়। রোহিঙ্গা দমনের কৌশল হিসেবে ধর্ষণ এবং যৌন সহিংসতার অভিযোগ রয়েছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে। এবিষয়ে কোন সুরাহা হওয়ার আগেই রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো হলে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তির শঙ্কা করছে যুক্তরাজ্য।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, “রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর ক্ষেত্রে তাদের নিরাপত্তা ও মর্যাদার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ । তাদের ইচ্ছাকেও প্রাধান্য দিতে হবে । রাখাইনে রোহিঙ্গাদের পুনরায় স্বাভাবিক জীবনে ফেরাতে প্রয়োজন বিশাল কর্মযজ্ঞ । সবচেয়ে বড় ঝক্কি হল বাংলাদেশের শরণার্থী ক্যাম্প থেকে তাদের মিয়ানমারের শরণার্থী ক্যাম্পে স্থানান্তর ।  পুরো কাজটা শেষ হতে অনেক সময় লেগে যাবে।”

Share

Comments

comments

Shares