প্রচ্ছদ

পূজার শুভ দিনে জোড়া ইলিশ

23 January 2018, 16:13

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 146 times.

বহ্নি চক্রবর্তীঃ  অনেক বাঙালি হিন্দু পরিবার বিভিন্ন পূজার শুভ দিনে জোড়া ইলিশ বা দু’টি ইলিশ মাছ কেনেন। সরস্বতী পূজা ও লক্ষ্মী পূজায় জোড়া ইলিশ কেনা খুব শুভ লক্ষণ হিসেবে মনে করা হয় । কিন্তু এই প্রথা পূর্ব বাংলার (আজকের বাংলাদেশের) বাঙালি হিন্দুদের মাঝে প্রচলন ছিল এখন যাদের অনেকেই ভারত বিভাগের পর পশ্চিমবঙ্গে, আসাম ও ত্রিপুরায় বাস করেন, তাদের মধ্যে রয়েছে । তাদের অনেকে লক্ষ্মী দেবীকে ইলিশ মাছ উৎসর্গ করেন । অনেকেই ইলিশ উৎসর্গ ছাড়া পূজাকে অসম্পূর্ণ মনে করেন ।

ব্রাক্ষণরা আগে কট্টর নিরামিষাশী ছিলেন । তাই মাছ খেতে পারতেন না । কিন্তু মাছের লোভ সামলাতে না পেরে বলতে লাগলেন শাস্ত্রে বলা আছে মাছেরা আসলে সমুদ্রের ফল বা জল তরু তাই অনায়াসে মাছকে শাক সব্জির মধ্যে ফেলা যায় । এই বলে কার্যত মাছের আমিষত্ব হরণ করতেন তাঁরা ।

পশ্চিম বাংলায় প্রথাগতভাবে দুর্গাপুজো থেকে সরস্বতী পুজো অবধি ইলিশ মাছ খাওয়া হয় না । অক্টোবার থেকে ফেব্রুয়ারি অবধি ইলিশের স্বাদ অত ভাল হয় না । আসলে ঐ সময় ইলিশ মাছের ব্রিডিং সিজন কিন্তু একবার যখন ইলিশের মরসুম শুরু হয় বাঙালিদের এই মাছ খাওয়া থেকে কেউ আটকে রাখতে পারে না !

অনেক বাঙালি হিন্দু পরিবারে জোড়া ইলিশ আনা হয় সরস্বতী পুজোর দিন যা সাধারণত বসন্ত কালের শুরুতে হয় । আগেকার দিনে এই জোড়া ইলিশ আবার রান্না করার আগে বিয়ে দেওয়া হত ঘটা করে । শরৎ কালে লক্ষ্মী পুজোর দিনেও ইলিশ মাছ এনে রান্না করা হয়, তবে বাঙ্গালীদের বাড়িতেই বেশি এই রীতি দেখা যায় । বেশীরভাগ সময় মানা হয় বাঙ্গালীরা ইলিশ মাছের ভক্ত আর ঘটিরা চিংড়ির ।

ইলিশ মাছকে নিয়ে অনেক রকমের গল্প শোনা যায় তার মধ্যে একটা হল ১৮৯৯ সালে স্বামী বিবেকানন্দ পদ্মার পার ধরে ভ্রমণ করছিলেন, একজন জেলে ১ টাকা দিয়ে ১৬ টা সদ্য ধরা তাজা ইলিশ মাছ দিলেন | মাছ তো কেনা হল, স্বামীজি এইবার পুঁইশাকের খোজ তীরে নেমে পড়লেন । ওঁর শাক ইলিশ খাওয়ার শখ হয়েছিল, তবে অনেক খুঁজেও কোথাও পুঁইশাকের হদিশ পাওয়া গেল না, অবশেষে একজন গ্রামবাসীর বাড়িতে পাওয়া গেল পুঁইশাক। ঐ গ্রামবাসীর একটাই শর্ত স্বামীজি আগে ওকে ওঁর শিষ্য করবেন তবেই সে পুঁইশাক দেবে ।  কী আর করবেন স্বামীজী ? রাজি হতেই হল সুস্বাদু ইলিশের জন্য ।

আজ সকাল বেলা শ্রী যুক্তবাবু সুবল দাশগুপ্ত মহাশয়ের পোস্টে দেখতে পেলাম জোড়া ইলিশ দিয়ে সরস্বতী পুজা র শুরু । মনে প্রশ্ন জেগেছে কেন এই জোড়া ইলিশ এ তথ্য টা আমার জানা ছিলো না, মহাশয় কে জিজ্ঞেস করেছি কেন এই জোড়া ইলিশ দিয়ে পুজার সূচনা ?  মহাশয় ভীষন সুন্দর ভাবে উওর দিয়েছেন আমাকে উনারা আদি নিবাসী বিক্রমপুরের এ প্রথা পূর্বপুরুষের আমল থেকে চলে এসেছে ।

বিক্রমপুর বাংলার একটি ঐতিহাসিক এলাকা । বিক্রমপুর ছিল রাজা বিক্রমাদিত্যের রাজধানী । এই এলাকায় বাংলার বহু কীর্তিমান ব্যক্তির জন্ম হয়েছে । এখানকার কৃতী সন্তানের মধ্যে রয়েছেন অতীশ দীপঙ্কর, জগদীশ চন্দ্র বসু, ব্রজেন দাস, সত্যেন সেন প্রমুখ । এক সময় হিন্দু সম্প্রদায়ের বংশওয়ালা মানুষের বসবাস ছিল বিক্রমপুরে, সেই ঐতিহ্য গুলো আজ ও অনেকে পালন করে যাচ্ছেন পূর্ব পুরুষের রীতি রেওয়াজ রক্ষায়।

Share

Comments

comments

Shares