100 GB Free Backup
This post has been seen 264 times.

বা্উন্ডুলে ইয়াকুবঃ বিজয়ের ৪৫ বছর ও থিয়েটার মুরারিচাঁদ প্রতিষ্ঠার ৪র্থ বার্ষিকী উদযাপন শেষে আজ এক মুল্যায়নসভা ও বাঙালি সংস্কৃতিক গ্রাম্য ও প্রাচীন অংশ চড়ুইভাতির আয়োজন করে। চড়ুইভাতির আবার ভিন্ন এলাকায় ভিন্ন নাম। কেউ বলে টুপাটুপি, কেউ বলেন টুপিভাতি, কেউ টুফাখানি। এই আয়োজনে সাধারণত সকলে মিলে গ্রাম্য পরিবেশ বাচাই করে নিজেরাই রান্না করে, ছোট্ট ছোট্ট ঘর তৈরি করে চড়ুইভাতি অর্থাৎ একবেলা খাবারখায়। সিলেটের সুনামধন্য প্রাচীন বিদ্যাপীঠ মুরারিচাঁদ কলেজে ঐতিহ্যবাহী ক্যাথারের টিলায় আজ আড়ম্বর এক আয়োজনে থিয়েটার মুরারিচাঁদের সকল সদস্যদের মিলনঘটে। ব্রিটিশ শাসনামল থেকে এই ক্যাথারের টিলায় সিলেট জেলার জিরো পয়েন্ট হিসেবে ধরা হয়। এই জায়গায় বর্তমানেও প্রাচীন একটি সীমানা পিলার পাওয়া যায়। যাতে লিখা আছে ‘০ পয়েন্ট’ সিল। তিনদিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব শেষে এর গঠনমুলক সমালোচনা ও অনুষ্ঠানের সার্থকতা বিফলতা নিয়ে মুল্যায়নসভার জন্য এই ক্যাথারের টিলাকে বেঁচে নেয় থিয়েটার মুরারিচাঁদ। আলোচনার পাশাপাশি ছিল গান, কবিতা ও কৌতুকের রমরমা আড্ডা। আলোচনায় সবাই অংশগ্রহন করে এবং নিজ নিজ জায়গায় থেকে দায়িত্বপালনের যে ভার অর্পিত ছিল তার গঠনমুলক ব্যর্থতা ও সার্থকতা তুলে ধরার চেষ্টা করেন। আলোচনা থেকে সিলেটের যে কটি সংগঠন ও যে সকল ব্যক্তি থিয়েটার মুরারিচাঁদের আয়োজিত সংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনায় অংশগ্রহণ করেছেন সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। যারা বিভিন্নভাবে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সহযোগীতা করেছেন তাদেরকেও আন্তরিক ধন্যবাদ জানানো হয়। বিশেষকরে যাদেরকে দাওয়াত করতে পারিনি, কিংবা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে পরিবেশনার সুযোগ করে দিতে পারেনি; তাদের কাছে আন্তরিক দুঃখ প্রকাশ করেছেন। বক্তরা বলেন কচি সংগঠন হিসেবে আমাদের ভুলগুলো ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এবং সর্বদা পরামর্শ ও পরিচর্যা করে আমাদেরকে সাংস্কৃতিক আন্দোলনে সহযোগীতা করবেন। সমস্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানের মান বৃদ্ধি করেন থিয়েটারের সম্পাদক ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর শামীমা চৌধুরী, থিয়েটারের কার্যনির্বাহ পরিষদ সদস্য ও বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাহেদা আখতার, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও ছাত্র হোস্টেলের সুপারভাইজার জনাব জামাল উদ্দীন। উপস্থিত ছিলেন সাবেক সদস্যসচিব দিলোয়ার হুসাইন, প্রতিষ্ঠাকালিন সদস্য ইয়ামিন ওসমান, দেবাশীষ দত্ত, সাবেক আহবায়ক বিধান সিংহ, প্রতিষ্ঠাকালিন সদস্য ফয়ছল মিয়া, মুহিবুর রহমান সাজু, সানাই’র পরিচালক জয়নাল আহমদসহ থিয়েটার মুরারিচাঁদের সকল সদস্যবৃন্দ।

 
http://jugapath.com/wp-content/uploads/2017/01/16128798_1178080638913529_557702914_n.jpghttp://jugapath.com/wp-content/uploads/2017/01/16128798_1178080638913529_557702914_n-150x150.jpgjugapathশিক্ষাসংস্কৃতিসিলেটবা্উন্ডুলে ইয়াকুবঃ বিজয়ের ৪৫ বছর ও থিয়েটার মুরারিচাঁদ প্রতিষ্ঠার ৪র্থ বার্ষিকী উদযাপন শেষে আজ এক মুল্যায়নসভা ও বাঙালি সংস্কৃতিক গ্রাম্য ও প্রাচীন অংশ চড়ুইভাতির আয়োজন করে। চড়ুইভাতির আবার ভিন্ন এলাকায় ভিন্ন নাম। কেউ বলে টুপাটুপি, কেউ বলেন টুপিভাতি, কেউ টুফাখানি। এই আয়োজনে সাধারণত সকলে মিলে গ্রাম্য পরিবেশ বাচাই করে...

Comments

comments