100 GB Free Backup
This post has been seen 75 times.

জরুরি প্রয়োজনে তাৎক্ষণিক সহায়তা দিতে চালু করা হেল্পলাইনে সাড়ে তিন মাসে যেসব ফোন কল এসেছে, তার প্রায় ৭০ শতাংশই ছিল নাগরিকদের কৌতূহলী ফোন। গত অক্টোবরে ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস (৯৯৯) চালু করে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ। জানুয়ারির শেষ নাগাদ কল এসেছে ১৩ লাখ ৩৫৩টি। এরমধ্যে তার ৯ লাখের বেশি কল হয় ৯৯৯ সম্পর্কে কৌতূহল নিয়ে। রোববার, ১৯ ফেব্রুয়ারি দৈনিক যায়যায়দিনে ‘নম্বর জরুরি, সহায়তার ফোন বেশি কৌতূহলের’ শিরোনামের সংবাদে এসব তুলে ধরা হয়েছে।

এদিকে, যৌক্তিক ৩ লাখ ৯৯ হাজার ২৮৬টি কলের মধ্যে ৬৮ শতাংশ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীবিষয়ক, ২৭ শতাংশ ফায়ার সার্ভিস এবং বাকি ৫ শতাংশ স্বাস্থ্য বা অ্যাম্বুলেন্সবিষয়ক।

তবে এসব কলের সমাধান দেওয়া হয়েছে ফায়ার সার্ভিসবিষয়ক দুই হাজার ১৬৬টি, আইন-শৃঙ্খলাবিষয়ক চার হাজার ৯৫৫টি এবং অন্যান্য তিন হাজার ১১৮টি। বাকি তিন লাখ ৮৯ হাজার জন নিয়েছেন সাধারণ তথ্য (থানা, হাসপাতালের ঠিকানা ও অন্যান্য বিষয়ে)। তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ জানায়, মোট গ্রহণযোগ্য কলের ১১ শতাংশ করেছেন নারীরা। প্রায় অর্ধেক (৪৭%) কল এসেছে ঢাকা থেকে, এরপর ১১ শতাংশ গাজীপুর থেকে।

এ প্রকল্পে কল সেন্টারে বর্তমানে ১০০ জন কাজ করছেন। প্রতি শিফটে থাকেন ২৫ জন অর্থাৎ একই সময়ে ২৫টি কল ধরা যায়। বর্তমানে কল সেন্টার ২৪ ঘণ্টা চালু রয়েছে বলে জানিয়েছে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ।তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ পরীক্ষামূলকভাবে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস দিতে ১১ অক্টোবর পাইলট কর্মসূচির আওতায় ৯৯৯ সেবাটি চালু করে। জাতীয় হেল্পডেস্ক নামে এর যাত্রা শুরু হলেও পরে ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস নাম হয়।

বাংলাদেশ পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অ্যাম্বুলেন্স সেবা ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্লাস ওয়ানের সেবাগুলোর সমন্বয়ে ও অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে এই সেবা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ইতোমধ্যে ৯৯৯ সম্পর্কিত প্রায় ৩০ হাজার মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করা হয়েছে।

http://jugapath.com/wp-content/uploads/2017/02/National-Help-Desk-999.jpghttp://jugapath.com/wp-content/uploads/2017/02/National-Help-Desk-999-150x150.jpgjugapathসারাদেশজরুরি প্রয়োজনে তাৎক্ষণিক সহায়তা দিতে চালু করা হেল্পলাইনে সাড়ে তিন মাসে যেসব ফোন কল এসেছে, তার প্রায় ৭০ শতাংশই ছিল নাগরিকদের কৌতূহলী ফোন। গত অক্টোবরে ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস (৯৯৯) চালু করে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ। জানুয়ারির শেষ নাগাদ কল এসেছে ১৩ লাখ ৩৫৩টি। এরমধ্যে তার ৯ লাখের বেশি কল হয়...

Comments

comments