100 GB Free Backup
This post has been seen 114 times.

আগুনসন্ত্রাসী, জঙ্গি সর্মথনকারী এবং যুদ্ধাপরাধী-রাজাকাররা সবাই খালেদা ও বিএনপি’র নেতৃত্বে¡ এখনো সক্রিয়। তারা এখনো তাদের অতীত রাজনৈতিক অবস্থান পরিবর্তন করেনি। তারা মাঝে মধ্যে নির্র্বাচন করলেও একদিকে মানুষ পোড়ানোর জন্য মাপ চায়নি, জঙ্গিদের রক্ষা ও জঙ্গিদের সর্মথন দেয়া বন্ধ করেনি, যুদ্ধাপরাধী-রাজাকারদের সঙ্গ ত্যাগ করেনি এবং জামাতের সঙ্গ ছাড়েনি, অন্য দিকে নির্বাচনকালীন সময়ে নিরপেক্ষতার দোহাই দিয়ে অসাংবিধানিক সরকার গঠনের পায়তারা করছে, সুতরাং খালেদা-বিএনপি-জামাতের এ রাজনৈতিক অবস্থান জনগণ, মুক্তিযোদ্ধের চেতনা, সংবিধান এবং গণতন্ত্রের জন্য হুমকীস্বরূপ। 
মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক, শোষণমুক্ত, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে সাংবিধানিক ধারাবাহিকতা রক্ষা এবং খালেদা-বিএনপি-জামাত-জঙ্গির বিপদজনক হুমকী মোকাবেলায় এ মুহুর্তে সাংবিধানিক ধারায় যথাসময়ে নির্বাচন সম্পন্ন করা, জঙ্গিবাদ সমূলে নির্মূল ও ধংস করা, জঙ্গি-সঙ্গী এবং আগুন সন্ত্রাসী খালেদা সহ দায়ী সকলকে বিচারের মুখোমুখি করা  আমাদের প্রধান রাজনৈতিক কর্তব্য।     
জঙ্গি নির্মূল করো, জঙ্গি-সঙ্গী বর্জন ও বিচার করো, দূর্নীতি বৈষম্যের অবসান করো, সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের বাংলাদেশ নির্মাণ করো এই দাবীতে আগামী ১১ মার্চ ২০১৭ ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় সমাজতান্তিক দল-জাসদ এর মহাসমাবেশ কে সফল করার লক্ষ্যে আজ ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, শনিবার সকাল ১১টায় সিলেট সার্কিট হাউজ সভাকক্ষে জাসদ সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাসদ সভাপতি, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্যমন্ত্রী, বীর মুক্তিযোদ্ধা জননেতা হাসানুল হক ইনু এম.পি. উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।     
সুনামগঞ্জ জেলা জাসদ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ.ত.ম. সালেহ’র সভাপতিত্বে এবং সিলেট জেলা জাসদ সাধারণ সম্পাদক কে.এ.কিবরিয়া চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় নারী জোট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি নারী নেত্রী আফরোজা হক রিনা, সিলেট জেলা জাসদ সভাপতি ও কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লোকমান আহমদ, মৌলভীবাজার জেলা জাসদ সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হক, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কাজী সালমা সুলতানা, নারী জোট সিলেট জেলা সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য শামীম আখতার, সিলেট মহানগর জাসদ সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, মৌলভীবাজার জেলা জাসদ সাধারণ সম্পাদক নাজিমুদ্দিন নজরুল, জাসদ সিলেট মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক গিয়াস আহমদ, সুনামগঞ্জ জেলা জাসদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রুহুল তুহিন, হবিগঞ্জ জেলা জাসদ নেতা আব্দুল কাইয়ুম মাহমুদ, সিলেট জেলা জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক লাল মোহন দেব, মাহনগর জাসদ নেতা আমিরুল ইসলাম চৌধুরী এহিয়া প্রমূখ। প্রতিনিধি সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঘাতক জামাত-শিবির চক্রের হাতে নির্মমভাবে নিহত শহীদ এনামুল হক জুয়েলের মাতা সায়রা খাতুন এবং শহীদ তপন জ্যোতি দে’র ভাই প্রবীর দে ও পরিমল দে।  
সভার শুরুতে ৫২’র ভাষা আন্দোলন, ৭১’র মুক্তিযুদ্ধ এবং গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামের সকল শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট দাড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়। 
http://jugapath.com/wp-content/uploads/2017/02/DSC_0301-1024x693.jpghttp://jugapath.com/wp-content/uploads/2017/02/DSC_0301-150x150.jpgjugapathসিলেটআগুনসন্ত্রাসী, জঙ্গি সর্মথনকারী এবং যুদ্ধাপরাধী-রাজাকাররা সবাই খালেদা ও বিএনপি’র নেতৃত্বে¡ এখনো সক্রিয়। তারা এখনো তাদের অতীত রাজনৈতিক অবস্থান পরিবর্তন করেনি। তারা মাঝে মধ্যে নির্র্বাচন করলেও একদিকে মানুষ পোড়ানোর জন্য মাপ চায়নি, জঙ্গিদের রক্ষা ও জঙ্গিদের সর্মথন দেয়া বন্ধ করেনি, যুদ্ধাপরাধী-রাজাকারদের সঙ্গ ত্যাগ করেনি এবং জামাতের সঙ্গ ছাড়েনি, অন্য দিকে...

Comments

comments