প্রচ্ছদ


জাফর ইকবালের ওপর হামলায় আটক ব্যক্তিরা আ.লীগের- ফখরুল

06 March 2018, 14:51

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 308 times.

মঙ্গলবার (৬ মার্চ) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে, সকাল ১১টা থেকে এক ঘণ্টা কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয় ।  সিলেটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) অধ্যাপক মুহাম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় বিএনপিকে দোষারোপ করায় আওয়ামী লীগ সরকারের সমালোচনা করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ।  মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, বরকতুল্লাহ বুলু, আবদুস সালাম, জয়নুল আবদীন ফারুক, ২০ দলীয় জোটের কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মোহাম্মদ ইব্রাহিম প্রমুখ। বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানীর পরিচালনায় মানববন্ধনে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, জিয়া পরিষদের মহাসচিব ড. এমতাজ হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব আবদুল্লাহিল মাসুদ, ২০ দলীয় জোটের নেতাদের মধ্যে লেবার পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ ।

তিনি বলেছেন, ‘দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় লেখক ও বিজ্ঞানীকে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাত করা হলো । আর কোনও তদন্ত না করে সরকার থেকে বলে দেওয়া হলো বিএনপি এজন্য দায়ী । অথচ দেখা যাচ্ছে, যাদের আটক করা হয়েছে তারা আওয়ামী লীগের লোকজন ।’

গত ৪ মার্চ সকালে রাজধানীর গুলিস্তানে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের অভিযোগ করেন, ‘মুহাম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার চক্রান্তে বিএনপির সম্পৃক্ততা রয়েছে । এই হামলা তাদের চক্রান্ত, যাদের পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে বিএনপি ।’  এর পরিপ্রেক্ষিতে মির্জা ফখরুল মঙ্গলবার মানববন্ধনে প্রশ্ন তোলেন,  ‘আওয়ামী লীগ কি শুধু ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য দেশকে অকার্যকর ও জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায় ?’  যোগ করে তিনি বলেন,  ‘দেশকে সম্পূর্ণভাবে অকার্যকর ও ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চক্রান্ত হচ্ছে । বাংলাদেশকে একটি নতজানু রাষ্ট্রে পরিণত করতে ষড়যন্ত্র সাজাচ্ছে ক্ষমতাসীনরা ।’

মির্জা ফখরুলের মন্তব্য, দেশের অর্থনীতি, শিক্ষা ও ব্যাংকিং ব্যবস্থা ধ্বংস হয়ে গেছে । তার কথায়, ‘দেশকে ও দেশের মানুষকে রক্ষার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে একসঙ্গে আন্দোলন করতে হবে ।’


Shares