প্রচ্ছদ


সিলেটে টিলা কাটার প্রমাণ হাতেনাতে পেয়েও পরিবেশ অধিদপ্তর নির্লিপ্ত

20 March 2018, 20:00

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 1245 times.

আব্দুল করিম কিমঃ মালনীছড়ায় টিলা কাটার প্রমাণ হাতেনাতে পেয়েও পরিবেশ অধিদপ্তর নির্লিপ্ত। বিশ্ব ধরিত্রী দিবসের প্রাক্কালে সংক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানাই।

সিলেটে অবস্থানরত স্থানীয় সাংসদ এক সময়ের পরিবেশবাদী সরকারের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত-কে কেউ যদি প্রশ্ন করেতেন, সিলেটের পাহাড়-টিলা কী এই ধরিত্রীর জন্য প্রয়োজন? যদি প্রয়োজন হয় তবে এই নির্লিপ্ততা কেন?

২০০৮ সালে যখন আবুল মাল আব্দুল মুহিত’কে মন্ত্রী করা হয় ভেবেছিলাম দেশের পরিবেশ-প্রতিবেশের সুদিন এলো। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই মোহভঙ্গ হয় । দেশের আশা ছেড়ে দেই।
আশা করলাম সিলেট বিভাগের নদী, পাহাড়, হাওড়, বনাঞ্চল রক্ষায় তিনি ভূমিকা রাখবেন । সে আশাও বাদ দিতে হয় ।
ভাবলাম, সিলেট জেলার ভেতর চলা পরিবেশ বিনষ্টি অনাচার অন্তত বন্ধ হবে।
তিনি সিলেটকে রক্ষায় কিছু করবেন। জৈন্তা, গোয়াইনঘাট, কানাইঘাট, কোম্পানীগঞ্জ-এ চলা পাথর লুট বন্ধ হবে । সব গুড়ে বালি। তিনি এসব বন্ধে কোন কথাই বলেননি। এই যে শত শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে, একবারো কি নিজের খারাপ লাগটাও প্রকাশ করেছেন ?

নিজের সংসদীয় আসনেই গত দশ বছর ধরে চলছে অবিরাম পাহাড়-টিলা কাটা। জলাশয় ভরাটের ঘটনা আছে। কিন্তু এসব নিয়ে তিনি নিশ্চুপ।
মাঝেমাঝে অবাক হয়ে মনেকরি, উনার ইচ্ছাতেই সিলেটে পরিবেশ আন্দোলন শুরু করা প্রথম সে সভার কথা। উনার ইচ্ছাতেই আমার মত একজনকে পরিবেশ আন্দোলনের নেতৃত্বে দেয়া হয়। মনে করি, উনার নির্বাচন, আলোকিত সিলেটের ইশতেহার।

সুত্র: আব্দুল করিম কিম এর ফেসবুক থেকে নেয়া।


Shares