প্রচ্ছদ


বদলে গেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত

11 April 2018, 00:51

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 282 times.

এক দিনেই বদলে গেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে নতুন করের আওতায় আনার বিষয়ে দেওয়া বক্তব্য থেকে সরে গিয়ে
তিনি বলেছেন, ভ্যাট নয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে তাদের লাভের ওপর আয়কর দিতে হবে।

মঙ্গলবার একনেকে এ বিষয়ে আলোচনায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়ের ওপর কোনো ধরনের কর আরোপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আগামী অর্থবছরের বাজেট নিয়ে সোমবার সম্পাদকদের সঙ্গে এক মতবিনিময়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিকদের কাছ থেকেও ভ্যাট নেয়া হবে।

তবে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে তারা (বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিক) ভ্যাট নেবেন কি নেবেন না- সেটা তিনি জানেন না বলে মন্তব্য করেন অর্থমন্ত্রী।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে এক অনুষ্ঠানে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় মেইকিং প্রফিট, সেই প্রফিটের ওপর ইনকাম ট্যাক্স হবে, ভ্যাট হবে না। ইয়েস, ইনকাম ট্যাক্স দিতে হবে।

এ নিয়ে বিভ্রান্তির ব্যাখ্যায় বলেন, আমি হয়ত কালকে কি বলে ফেলেছি।

২০১৫ সালে বেরসরকারি উচ্চ শিক্ষায় সরকার ভ্যাট আরোপ করলে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামে। তখন সরকার পিছু হটতে বাধ্য হয়।

‘নো ভ্যাট অন এডুকেশন’ নামের আন্দোলনের ওই প্ল্যাটফর্মের উদ্যোক্তারা ইতোমধ্যে মুহিতের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, সরকার নতুন করে আবার কর আরোপের পরিকল্পনা করলে আন্দোলনের মাধ্যমে তা প্রতিহত করবেন তারা।

এদিকে অর্থমন্ত্রীর ওই বক্তব্য নিয়ে মঙ্গলবার একনেক বৈঠকেও আলোচনা হয় বলে সাংবাদিকদের জানান পরিকল্পনা মন্ত্রী মুস্তফা কামাল।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ভেতরে বলেছেন, আপাতত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর কোনো ধরনের কর আরোপ করা হবে না। শিক্ষার প্রসারে বেসরকারি বিশ্ববিদালয়ের সব ধরনের আয় করমুক্ত থাকবে।

একনেকের ওই বৈঠক অংশ নেওয়ার পরই সচিবালয়ে ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) লভ্যাংশ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী অন্য কথা বলেন।

তিনি বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বর্তমানে লাভের ওপর কর দেয় না, যা তাদের দিতে হবে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজেদের অলাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে দাবি করে, সেক্ষেত্রে তাদের কী হিসেবে কর দিতে হবে- এ প্রশ্নে অর্থমন্ত্রী বলেন, অলাভজনক বলতে চেষ্টা করে, সেখানে ফাঁক ফোকর দেখবে ইনকাম ট্যাক্সওয়ালারা।


Shares