প্রচ্ছদ


‘হত্যা করা হয়েছে’ শ্রীদেবীকে !

24 May 2018, 02:07

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 507 times.

শ্রীদেবীর নামে ওমানে ২৪০ কোটির একটি জীবনবিমা ছিল। বিমার শর্ত ছিল, টাকাটা তার পরিবার তখনই পাবে, যদি একমাত্র দুবাইতে তিনি মারা যান। ঘটনাচক্রে দুবাইতেই মৃত্যু হয় তার। সংযুক্ত আরব আমিরাতে গিয়ে চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি মৃত্যু হয় বলিউডের প্রথম নারী সুপারস্টার শ্রীদেবীর । দুবাইয়ের ফরেনসিক ও তদন্ত দলের ভাষ্য অনুযায়ী, বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে দুর্ঘটনাবশত বাথটাবের পানিতে ডুবে প্রাণ যায় তার । কিন্তু ভারতের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা বেদ ভূষণের দাবি, খুন হয়েছেন শ্রীদেবী । তার ভাষ্য, সুপারস্টারকে হত্যার পেছনে রয়েছে ইন্টারপোলের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ তালিকায় থাকা মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমের হাত ।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে জানানো হয়, কয়েক দিন আগে পুলিশের সাবেক সহকারী কমিশনার (এসিপি) বেদ ভূষণ শ্রীদেবীর মৃত্যুকে ঘিরে বহু তথ্য প্রকাশ্যে আনেন। তার মতে, স্বাভাবিক মৃত্যু নয়, শ্রীদেবীকে পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে। তবে নিজের মন্তব্যে সঠিক কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেননি তিনি ।  কিছুদিন আগে শ্রীদেবীর মৃত্যু স্বাভাবিক নয় ও তাকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি তুলেছিলেন পরিচালক সুনীল সিং। তিনি প্রশ্ন করে বলেছিলেন, শ্রীদেবীর উচ্চতা পাঁচ ফুট সাত ইঞ্চি। আর বাথটাবটি ছিল পাঁচ ফুটের। তাহলে কীভাবে তার বাথটাবে ডুবে মৃত্যু হতে পারে?

যেহেতু দুবাইজুড়ে দাউদের বিচরণ ও ক্ষমতা রয়েছে, সে কারণেই এই ধরনের অনুমান করেছেন পুলিশের সাবেক এই কর্তা । ভারতের পররাষ্ট্রবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও জানানো হয়, শ্রীদেবীর মৃত্যুর মধ্যে রহস্যজনক কিছু নেই । কিন্তু একটি ইংরেজি সংবাদপত্রে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বেদ ভূষণ বলেন, ‘কাউকে বাথটাবের মধ্যে ডুবিয়ে মারা খুব সহজ । সে ক্ষেত্রে অনেক সময়ই কোনো প্রমাণ পাওয়া যায় না । কাজেই সহজেই দুর্ঘটনা হিসেবে প্রমাণ করা যায় । শ্রীদেবীর ক্ষেত্রেও এমনটাই ঘটেছে ।’


Shares