প্রচ্ছদ


ভারতে ডি.লিট সাম্মাননা পেলেন প্রধানমন্ত্রী (ভিডিও)

26 May 2018, 20:57

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 404 times.

বিদ্রোহী কবি কাজি নজরুলের ১১৯ তম জন্মজয়ন্তীকেই সমাবর্তন অনুষ্ঠানের জন্য বেছে নেয় কাজি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ । সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯ জন পড়ুয়া-গবেষককে স্বর্ণপদক প্রদান করা হয় ।  ৪৪০ জনের হাতে তুলে দেওয়া হয় শংসাপত্র ।  জাতীয় কবি কাজি নজরুলের নামে সম্মান অনেক বড় পাওয়া । কাজি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাম্মানিক ডি.লিট গ্রহণের পর আবেগতাড়িত শেখ হাসিনা ।  সেইসঙ্গে কাজি নজরুলের নামে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য ধন্যবাদ জানালেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে । পাশাপাশি, এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সাম্মানিক ডি.লিট প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয় ।

সম্মান গ্রহণ করে দৃশ্যতই আপ্লুত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী । তাঁর বক্তব্যের প্রতিটি ছত্রে ছত্রে ঝরে পড়ে আবেগ,  ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞতা ।

প্রধানমন্ত্রী জানান, বিশ্বের বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই তাঁকে বিভিন্ন সময়ে সম্মান প্রদানের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়ে থাকে । কিন্তু, সময়ের অভাবে সবসময় সব জায়গায় গিয়ে তিনি উপস্থিত হতে পারেন না । কিন্তু, কাজি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে তাঁকে আমন্ত্রণ পেয়ে সিদ্ধান্ত নিতে তিনি দ্বিতীয়বার ভাবেননি ।

তিনি বলেন, কাজি নজরুল সবসময় বাংলাদেশের মানুষের চেতনায় জাগ্রত । বাংলাদেশের মানুষের লড়াইয়ের অনুপ্রেরণা । তাঁকে দেওয়া এই সম্মান “বাংলাদেশের মানুষের সম্মান, প্রতিটি বাঙালির সম্মান” বলে উল্লেখ করেন বঙ্গবন্ধু মুজিবর রহমানের কন্যা ।

তিনি আরও বলেন, “বাংলা ভাগ হতে পারে, কিন্তু রবীন্দ্র-নজরুলের কোনও ভাগ হয় না।”

একইসঙ্গে বিভিন্ন কঠিন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের পাশে থাকার জন্য এদিন ফের ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন হাসিনা ।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় ১ কোটি বাংলাদেশি শরণার্থী ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলেন । সেইসময় “খাবার ভাগ করে খেয়েছিল ভারতবাসী”। আগামী দিনেও উপমহাদেশের মানুষের উন্নয়নের লক্ষ্যে ভারত-বাংলাদেশ একযোগে কাজ করবে বলে এদিন আশাপ্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ভিডিও সৌজন্যে: জিবাংলা ২৪ঘন্টা নিউজ।



Shares