প্রচ্ছদ


মূল্য বৃদ্ধি মোবাইলে, কমবে সফটওয়্যার

08 June 2018, 13:00

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 409 times.

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের পঞ্চম বাজেট এটি । বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটির বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী। এর মধ্যে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য দুই লাখ ৯৬ হাজার ২০১ কোটি টাকা । বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদ ভবনে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য এই বাজেট অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এরপর মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাওয়া প্রস্তাবিত বাজেটে সম্মতিসূচক স্বাক্ষর করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জানিয়েছেন,  আমদানি করা বিদেশি মোবাইল ফোনের সারচার্জ এক থেকে বাড়িয়ে দুই শতাংশ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে । ফলে আমদানি করা মোবাইল ফোনের দাম বাড়বে ।

এতদিন মোবাইল আমদানিতে শুল্ক বাবদ ১০ শতাংশ, মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) ১৬ দশমিক পাঁচ শতাংশ, অগ্রিম আয়কর (এআইটি) দুই শতাংশ ও সারচার্জ বাবদ আমদানিকারকদের এক শতাংশ দিতে হতো । এখন তা আরও এক শতাংশ বেড়ে দুই শতাংশ হওয়ায় মোট ট্যাক্স-ভ্যাটের পরিমাণ দাঁড়াল ৩০ দশমিক পাঁচ শতাংশে । ফলে ১০ হাজার টাকা দামের একটি মোবাইল ফোন আমদানিতে ট্যাক্স-ভ্যাট দিতে হবে তিন হাজার ৫০ টাকা ।

অন্যদিকে সফটওয়্যার আমদানিতে শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে পাঁচ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে । আর ১৫ শতাংশ ভ্যাটও তুলে নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে । ফলে আমদানি করা সফটওয়্যারের দাম কমবে ।  ডাটবেজ, অপারেটিং সিস্টেম, ডেভেলমেন্টস টুল, প্রোডাক্টিভিটি, অটোমেটিক ডাটা প্রসেসিং মেশিনের জন্য কমিউনিকেশন কিংবা কোলাবরেশন সফটওয়্যারসহ বিভিন্ন সফটওয়্যারে এই ছাড় দেওয়ার কথা বলা হয়েছে ।

এদিকে মোবাইল ফোনের কাঁচামাল আমদানিতে শুল্ক ২৪ শতাংশ পর্যন্ত কমানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে । ফলে কমতে পারে দেশে উৎপাদিত মোবাইল ফোনের দাম ।


Shares