প্রচ্ছদ


সত্যিকারের উন্নয়ন মানে তৃনমূলের উন্নয়ন : নিগার সুলতানা রানী

15 October 2018, 09:29

নিজস্ব প্রতিবেদক
This post has been seen 369 times.

জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেত্রী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নিগার সুলতানা রানী বলেন , সত্যিকারের উন্নয়ন মানে তৃনমূলের উন্নয়ন । উৎসবের আনন্দ প্রতিবেশীর সঙ্গে ভাগ করে নিতে হবে । দুর্গাপুজা উপলক্ষে সাভার প্রেস্ক্লাব দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর যে উদ্যোগ নিয়েছে আমি তাকে স্বাগত জানাই । তিনি আজ সাভার উপজেলা প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে দরিদ্র নারীদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করতে গিয়ে এ কথা বলেন । রবিবার(১৪ই অক্টোবর) বিকালে আনুষ্ঠানিকভাবে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন করা হয়।অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অাবু অাহমেদ নাসিম পাভেল। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র দেব। বক্তব্য রাখেন ,দৈনিক যুগান্তরের স্টাফ রিপোর্টার জাভেদ মোস্তফা, এসএ টেলিভিশনের সাংবাদিক রুপোকুর রহমান , সাভার উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কামরুজ্জামান হিমু ,মাই টিভির সাংবাদিক অাব্দুল্লাহ অাল ওয়াহিদ , রেডটাইমসের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ। সাভার উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও একাত্তর টেলিভিশনের সাংবাদিক মিঠুন সরকারের সভাপতিত্ব অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মো: অাব্দুল খালেক।
বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের সভাপতি সৌমিত্র দেব বলেন,সাংবাদিকরাই সমাজের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ায় । প্রকৃত সাংবাদিক জনগণের বন্ধু । ভাল কাজ দিয়েই সাংবাদিক নামধারী অপসাংবাদিকদের প্রতিহত করতে হবে । সৌমিত্র দেব বলেন, পর্দার নায়ক মিঠুনের চেয়ে বাস্তবের নায়ক সাংবাদিক মিঠুন কোন অংশে কম নন । তিনি গরিব শিশুদের জন্য দাতব্য বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছেন । গরিব নারীদের মাঝে বস্ত্র বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছেন ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু নাসীম আহমেদ পাভেল বলেন, এ জাতি বীরের জাতি। বাংলার প্রতিটি ধর্মাবলম্বী মানুষের রক্ত এক। ধর্মে ধর্মে নেই কোনো ভেদাভেদ। সবাই বাংলা মায়ের সন্তান। সবাই মানুষ।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ আমাদের সবার। অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার জন্য আমাদের পূর্বপুরুষরা মুক্তিযুদ্ধ করেছেন। একজন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান আমি। বিভিন্ন আন্দোলনে বারবার কারাবরণ করেছি আমি। কিন্তু দমে যাইনি। দেশ গড়ার লক্ষে, দেশের মানুষের সেবা করার জন্য সব সময় কাজ করেছি। মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কখনো ডিগবাজি দেইনি। সবসময় ন্যায়ের পক্ষে কাজ করেছি।

সবাইকে যার যার ধর্ম পালনের জন্য বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে সাভার উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মিঠুন সরকার বলেন, সমাজ নির্মাণে বাধাবিঘ্ন আসবেই। কিন্তু আমাদের থেমে থাকলে চলবে না। সবসময় সমাজের ভালো কাজ করার জন্য এগিয়ে যেতে হবে। এরজন্য নিজেদের শ্রম দিতে হবে ও ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। সকলকে সাথে নিয়ে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে এগিয়ে যাওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।



Shares